০২ জুলাই ২০২২ ইং, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম:
মাধবদী জনকল্যাণ সংস্থার পক্ষ থেকে সিলেটে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ পাবনায় আনন্দ ও মোহনা টিভির প্রতিনিধিকে লাঞ্ছিতের প্রতিবাদে বিএমএসএফের মানববন্ধন আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে নুরালাপুর ইউপি চেয়ারম্যান খাদেমুল ইসলাম ফয়সালের বিশাল শুভাযাত্রা নরসিংদী জেলা আনসার ও ভিডিপি বাহিনীর সমাবেশ অনুষ্ঠিত নরসিংদীর হাজিপুরে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ব্যবসায়ী সুজিত সূত্রধরকে কুপিয়ে হত্যা আহত ২

নরসিংদীতে পিবিআই কর্তৃক আন্তঃজেলা প্রতারকচক্রের সদস্য গ্রেপ্তার

  নরসিংদীর সংবাদ

মোস্তাক আহমেদ-
নরসিংদীতে অবসর প্রাপ্ত সেনা সদস্য পরিচয়দানকারী আবুল হোসেন নামে আন্তঃজেলা প্রতারকচক্রের এক সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছেন নরসিংদী জেলা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।
বুধবার (১৩ এপ্রিল) নরসিংদী জেলা পিবিআই এর পুলিশ সুপার মোঃ এনায়েত হোসেন মান্নান এর স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানা যায় যে, পুলিশ ব্যুরো অব ইভেস্টিগেশন(পিবিআই) প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকেই বাংলাদেশের বিচারিক ব্যবস্থায় সঠিক তদন্ত উপহার দেওয়ার জন্য নিরলস কাজ করে চলেছে। বিস্মৃত প্রায় অপরাধের সূত্র ধরে হত্যা, অপহরন, গুম, জঙ্গি, জলদস্যু, ডাকাত, অস্ত্র ব্যবসায়ী, মাদক, ব্যবসায়ী, মানব পাচারকারীসহ সকল অপরাধীকে বিচারের কাঠগড়ায় দাড় করাতে এবং ন্যায় প্রতিষ্ঠার জন্য দৃঢ সংকল্প ও বদ্ধ-পরিকর। এরই ধারাবাহিকতায় নরসিংদী মডেল থানার মামলা নং-১৮, তারিখঃ ১১/০৪/২০২২। অত্র মামলার বাদী কামাল হোসেন ওরফে কাঞ্চন(৩৮) এর নিকট একটি সক্রিয় প্রতারক চক্রের সদস্যরা নিজেদেরকে অবসর প্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা হিসেবে পরিচয় দেয় এবং উপর লেভেলে তাদের অনেক সেনা বাহিনীর অফিসার পরিচিত আছে বলে জানায়। সেই সুবাদে নরসিংদীর শিবপুর থানাধীন দত্তের গাঁ গ্রামের মৃত তারা মিয়ার ছেলে আসামী মোঃ আবুল হোসেন ও তার সহযোগী রহুল আমিন কামাল হোসেন কে প্রস্তাব দেয় যে, কামাল হোসেনের ছোট ভাই রফিকুল ইসলামকে সেনা বাহিনীর বেসামরিক অফিস সহকারী পদে চাকুরী নিয়ে দিবে। তখন সে প্রতারকচক্রের প্রস্তাবে রাজী হয়ে সরল বিশ্বাসে এবং চাকুরীর আশায় রুহুল আমিনের সহায়তায় ও দেখানো মতে বিগত ৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ খ্রি. সকাল অনুমান ১১.৩০ মিনিটে নরসিংদী পৌর শহরস্থ ভেলানগর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অবস্থিত মেঝবান হোটেলে বসে সাক্ষীদের উপস্থিতিতে প্রতারক আবুল হোসেনের নিকট নগদ ৮,০০,০০০/= (আট লক্ষ) টাকা প্রদান করেন। পরবর্তীতে প্রতারকচক্র কামাল হোসেন ও রফিকুলকে রাজধানীর ফকিরাপুলস্থ পানির ট্র্যাংকি এলাকার একটি অফিসে নিয়ে যায়। উক্ত অফিসে থাকা অপর প্রতারকচক্রের অন্য সদস্য রহিম ও ফারুক সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে কামাল ও তার ভাই রফিকুল ইসলামের কাগজ পত্র দেখে। কয়েকদিন পর প্রতারক আবুল হোসেন ও রুহুল আমিন রফিকুলকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বেসামরিক অফিস সহকারী পদে ভর্তির একটি চূড়ান্ত নিয়োগপত্র প্রদান করে। নিয়োগ কর্মকর্তা লেঃ কর্ণেল মোঃ ওবায়দুল নির্বাহী প্রকৌশলী, এজি-২ (এলএও) পূর্ত পরিচালক নামে স্বাক্ষরিত। কামাল হোসেন ও তার ভাই উক্ত নিয়োগপত্রের সত্যতা যাচাই এর লক্ষ্যে ঢাকা সিএমএস এ যোগাযোগ করে জানতে পারে যে, নিয়োগপত্রটি মিথ্যা এবং ভূয়া নিয়োগপত্র প্রদান করে। পরে তিনি জানতে পারেন যে, প্রতারকচক্র নিজেদেরকে সেনাবাহিনীর বড় অফিসার পরিচয় দিয়ে প্রতারনার মাধ্যমে তার কাছ থেকে ৮,০০,০০০/= ( আট লক্ষ) টাকা আত্মসাৎ করেন। প্রতারনার শিকার কামাল হোসেন নিজে বাদী হয়ে নরসিংদী জেলা পিবিআইতে অভিযোগ দায়ের করেন। উক্ত অভিযোগটির তদন্তভার এসআই রতন মিয়াকে দেওয়া হলে তিনি জেলা পিবিআই পুলিশ সুপার মোঃ এনায়েত হোসেন মান্নান এর দিক নির্দেশনায় ও তত্ত্বাবধানে নরসিংদী, গাজীপুরসহ রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন স্থানে একাধিক উদ্ধার অভিযান পরিচালনাকালে গত ১১ এপ্রিল সোমবার ভোর ৪:৩০ মিনিটে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঢাকার দক্ষিণখান থানাধীন ফায়দাবাদ,টিআইসি কলোনী এলাকা থেকে প্রতারকচক্রের সদস্য মোঃ আবুল হোসেন কে(৫০) গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। তিনি আরও জানা, নরসিংদী মডেল থানায় সূত্রোক্ত মামলাটি দায়ের করা হয় এবং মামলার অন্যান্য কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
ওপরে