২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ইং, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম:
সাংবাদিক বোরহানউদ্দিন মুজাক্কির হত্যার প্রতিবাদে নরসিংদীতে বিএমএসএফ এর প্রতিবাদ সমাবেশ নরসিংদীতে গোয়েন্দা পুলিশের বিশেষ অভিযানে ৩ কেজি গাঁজাসহ চিহ্নিত ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নরসিংদী হার্ট ফাউন্ডেশনের কোষাধক্ষ্য এবিএম আশরাফ টিপুর নেতৃত্বে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন নরসিংদীতে চাঁহাত ট্রেডিং কর্পোরেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের জন্মদিন উদযাপন নরসিংদীতে ডিবি পুলিশের অভিযানে ৭৫০ পিস ইয়াবাসহ চিহ্নিত ৫ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

নরসিংদীর মনোহরদীতে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

  নরসিংদীর সংবাদ

নিজস্ব প্রতিনিধি//

নরসিংদীর মনোহরদী উপজেলায় এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে।
উপজেলার সুকুন্দী ইউনিয়নের বালিপুড়া গ্রামের সৌদি প্রবাসী কবির হোসেনের স্ত্রী মারুফা আক্তার (২০) সিলিং ফ্যানের সাথে ওড়না পেচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।
এদিকে হত্যা করে স্বামীর বাড়ির লোকজন সিলিং ফ্যানের সাথে ঝুলিয়ে আত্মহত্যার নাটক করেছে বলে অভিযোগ করেছে মারুফা আক্তারের স্বজনরা। বৃহস্পতিবার সন্ধায় কবিরের বসত বাড়ি থেকে পুলিশ গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করেছেন।মৃত মারুফা আক্তারের বাবার বাড়ি গোতাশিয়া ইউনিয়নের তেলিকান্দা গ্রামে। মারুফার মৃত্যুর খবরে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
গৃহবধূ মারুফা আক্তারের মা জানায় তিন বছর আগে মারুফা আক্তার কে বালিপুড়া গ্রামের হারুনুর রশীদ (বুরুজ) এর ছেলে কবির হোসেনের সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের পরপরই স্বামী কবির হোসেন সৌদি চলে যায়।
ছোটখাটো বিষয় নিয়ে প্রায় সময়ই বাড়ির লোকজন মারুফাকে নির্যাতন করতো এজন্য কয়েকমাস আমাদের বাড়িতে রাখলে তার শশুড় এসে নিয়ে যায়। মারুফার স্বামী কবির হোসেন কিছু দিন আগে দেশে এসেছে।
আমরা মারুফার মৃত্যুর খবর পেয়ে গিয়ে দেখি আমার মেয়েকে উড়না পেচিয়ে সিলিং ফ্যানের সাথে ঝুলিয়ে রেখেছে। আমার মেয়ে আত্মহত্যা করতে পারেনা ওরা আমার মেয়েকে হত্যা করেছে, মারুফার শরিলে নির্যাতনে চিহ্ন রয়েছে । আমি এই হত্যার বিচার চাই।
এদিকে ঘটানার পরপরই মৃত গৃহবধূর স্বামী কবির হোসেন পলাতক রয়েছেন। তার মোবাইলে যোগাযোগ করলে বন্ধ পাওয়া যায়।
এ ব্যাপারে মনোহরদী থানার এস আই নুরুল আলম জানায় খবর পেয়ে গৃহবধূ মারুফা আক্তারের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়। নিহতের স্বামী কবির হোসেন পলাতক রয়েছেন এবং বাড়ির অন্যান্য সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।
ময়না তদন্তের রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত বলা যাবে না হত্যা না আত্মহত্যা।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
ওপরে