০৮ আগস্ট ২০২০ ইং, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম:
নরসিংদীতে কিশোরীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে শিবপুর মডেল থানা পুলিশ বাংলাদেশ পুলিশের অ্যাডিশনাল আইজিপি মাহবুব হোসেন সংক্ষিপ্ত সফরে নরসিংদীতে মাধবদী প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের সাথে মাধবদী থানার অফিসার ইনচার্জের মতবিনিময় ক্রসফায়ারের ভয়ে ২৩ মাস কক্সবাজারের সাংবাদিক ফরিদুল মোস্তফা কারাগারে… নরসিংদী জেলা গোয়েন্দা পুলিশের পৃথক পৃথক অভিযানে ইয়াবা ও গাঁজাসহ গ্রেফতার ৫

বাংলাদেশ সরকারের সাবেক সিনিয়র সচিব মো: মোশাররফ হোসেন ভুঁইয়া জার্মান রাষ্ট্রদূত হলেন

  নরসিংদীর সংবাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক/নরসিংদীর সংবাদ-

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাবেক সিনিয়র সচিব নরসিংদীর কৃতি সন্তান বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ নরসিংহ জনাব মো: মোশাররফ হোসেন ভুঁইয়াকে সরকার জার্মানীর রাষ্ট্রদূত নিয়োগ দান করেছেন।
সৎ, দক্ষ, নিরহংকারী মো: মোশাররফ ভুঁইয়া, সর্বশেষ জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান থাকাকালীন সময়ে অবসরে যান।
২০১০ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি সেতু বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব পদে নিয়োগ পান তিনি। একই বছরের ২৯ জুলাই পদোন্নতি পেয়ে সচিব হন মোশাররফ।
এ দায়িত্ব পালনকালে পদ্মাসেতুর পরামর্শকের কাজ পাইয়ে দিতে কানাডীয় প্রতিষ্ঠান এসএনসি লাভালিনকে ঘুষ লেনদেনের ষড়যন্ত্রের অভিযোগে ২০১২ সালের ১৭ ডিসেম্বর বনানী থানায় মোশাররফ হোসেনসহ সাত জনকে আসামি করে মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। মামলার পর মোশাররফ হোসেনকে ওএসডি (বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) করা হয়। পরে তাকে গ্রেফতার করা হয়।
ওই বছরের ২৬ ডিসেম্বর হাইকোর্ট থেকে বের হওয়ার পর গণপূর্ত ভবনের সামনে থেকে মোশাররফকে গ্রেফতার করা হয়। তাকে কয়েক দফায় রিমান্ড মঞ্জুর করে পরে কারাগারে পাঠানো হয়। ২০১৩ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি জামিন পান মোশাররফ ভুঁইয়া।
তদন্তের পর দুদক জানায়, আসামিদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির কোনো তথ্য প্রমাণ পাওয়া যায়নি। দুদক চূড়ান্ত প্রতিবেদন দেওয়ার পর ২০১৪ সালের অক্টোবরে পদ্মাসেতু দুর্নীতি মামলার অবসান ঘটে। সচিব মোশাররফ হোসেন সহ সাত আসামির সবাইকে অব্যাহতি দেন আদালত। পরবর্তীতে কানাডার আদালতে দায়ের করা মামলাতে ও খালাস পান আসামিরা।
এরপর ২০১৪ সালের ২৬ অক্টোবর শিল্প সচিব পদে নিয়োগ পেয়ে মোশাররফ ২০১৬ সালের ১১ এপ্রিল সিনিয়র সচিব হিসেবে পদোন্নতি পান।
ওই বছরের ৩০ জুন অবসরোত্তর ছুটিতে (পিআরএল) যাওয়ার কথা ছিল মোশাররফ ভুঁইয়ার। তবে একদিন আগে ২৯ জুন পিআরএল বাতিল করে তাকে এক বছরের চুক্তিতে শিল্প মন্ত্রণালয়ে সিনিয়র সচিব পদে রেখে দেয় সরকার।
২০১৮ সালের ৩ জানুয়ারি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় এক আদেশে দুই বছরের চুক্তিতে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান পদে তাকে নিয়োগ দেয় হয়।
পদ্মাসেতু প্রকল্পে দুর্নীতির মিথ্যা অভিযোগে জেলখাটা মোশাররফ হোসেনকে আবারও এ নিয়োগের মাধ্যমে পুরস্কৃত করা হয়। এনবিআরের চেয়ারম্যান হিসেবে সফল ও হন তিনি।

উল্লেখ চাকরিতে ফেরত আসার পর মোশাররফ ভুঁইয়া বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের (বেজা) নির্বাহী চেয়ারম্যান এবং প্রাইভেটাইজেশন কমিশনের সদস্যের দায়িত্ব পালন করেন। এ ছাড়াও তিনি বিভিন্ন সময়ে সরকারের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন।
জনাব ভুঁইয়া একজন সুলেখক ও বটে। সর্বশেষ তিনি পদ্মাসেতু” সততা ও আত্মবিশ্বাসের বিজয়” বইটি লিখে পাঠক সমাজে আলোড়ন তুলেন। পাঠক সমাজ বইটি লুফে নেন। ইতিহাসের অংশ হয়ে যায় বইটি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) থেকে অর্থনীতিতে স্নাতকোত্তর নরসিংদীর সন্তান মোশাররফ ১৯৮১ সালের বিসিএস ব্যাচের কর্মকর্তা।
জানাযায়, জার্মানীতে দায়িত্ব পালন কালে তিনি প্রতিমন্ত্রী মর্যাদা লাভ করবেন।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
ওপরে